EPFO New Rule 2024: EPFO-র নতুন নিয়মেই হলো বাজিমাত, জরুরি অবস্থায় টাকার চিন্তা করতে হবে না চাকুরীজীবীদের!

EPFO New Rule 2024: সম্প্রতি EPFO-এর একটি নতুন নিয়ম প্রকাশে আসতেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললো গ্রাহকরা। সারা দেশে কোটি কোটি গ্রাহক এই নতুন নিয়মে উপকৃত হবেন বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু…

Published By: Debapriya Sarkar | Published On:

EPFO New Rule 2024: সম্প্রতি EPFO-এর একটি নতুন নিয়ম প্রকাশে আসতেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললো গ্রাহকরা। সারা দেশে কোটি কোটি গ্রাহক এই নতুন নিয়মে উপকৃত হবেন বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু এই নতুন নিয়মটি কি? এই বিষয়ে সমস্ত তথ্য জানাতেই আজকের আমাদের এই প্রতিবেদন। তাই এই EPFO-এর নতুন নিয়ম সম্বন্ধে বিস্তারিত জানতে শেষ পর্যন্ত চোখ রাখুন আমাদের এই প্রতিবেদনে।

EPFO-এর নতুন নিয়মটি কি ?

সম্প্রতি EPFO-এর প্রকাশ্যে আসা নতুন নিয়ম অনুযায়ী জানা গিয়েছে, এখন থেকে ইপিএফ ক্লেমের (EPF Claim) জন্য বাতিল চেক (Cancel Cheque) বা ব্যাঙ্ক পাসবুকের (Bank Passbook) প্রয়োজন হবে না। এই বিষয়ে তথ্য দিতে গিয়ে বলা হয় যে, কোনো গ্রাহক যদি অন্য সমস্ত শর্ত পূরণ করেন, তবে সেই পরিস্থিতিতে তাকে দাবি নিষ্পত্তির জন্য চেক বই বা ব্যাঙ্কের পাসবুক আপলোড করার ছাড় দেওয়া হয়েছে। এটি অনলাইন দাবি নিষ্পত্তির মামলাগুলিকে ত্বরান্বিত করবে। এর আগে EPFO চেকের পাতার ছবি বা ব্যাঙ্ক পাসবুকের কপি আপলোড না করার কারণে অনেক দাবি প্রত্যাখ্যান করত।

আরোও পড়ুনঃ প্রতিমাসে ইনকাম হবে ৫০,০০০ টাকা। মাত্র ১৫ হাজার বিনিয়োগে ইউনিক ব্যবসার আইডিয়া

EPFO-এর সার্কুলার জারি :-

গত ২৮শে মে, এই সম্পূর্ণ বিষয়টি নিয়ে EPFO একটি সার্কুলার জারি করেছে। সেখানে জানানো হয়েছে যে, EPFO অনলাইনে দায়ের করা দাবি নিষ্পত্তির নিয়ম পরিবর্তন করেছে। এর কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, চেক লিফ বা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের বিবরণ আপলোড না করার কারণে দাবি প্রত্যাখ্যানের সংখ্যা কমাতে নিয়মগুলিতে পরিবর্তন করা হয়েছে। তবে শুধুমাত্র কিছু বৈধতার ক্ষেত্রে এই ছাড় দেওয়া হয়েছে।

কোন ক্ষেত্রগুলিতে ছাড় দেওয়া হবে?

EPFO তার সার্কুলারে জানিয়েছে যে, এই পরিবর্তিত নিয়ম অনুযায়ী শুধুমাত্র সেই EPFO-এর সদস্যরাই ছাড় পাবেন, যাদের অন্যান্য বৈধতা সম্পন্ন হয়েছে। এই পরিবর্তনের মধ্যে ব্যাঙ্কের KYC-এর অনলাইন যাচাইকরণ, DSC (ডিজিটাল স্বাক্ষর শংসাপত্র) এর মাধ্যমে নিয়োগকর্তার দ্বারা ব্যাঙ্ক KYC যাচাইকরণ এবং UIDAI-এর মাধ্যমে আধার নম্বর যাচাইকরণের মতো প্রক্রিয়াগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে৷

নিয়ম পরিবর্তন হওয়ার আগে, EPF দাবির ক্ষেত্রে সদস্যের নাম, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর এবং IFSC কোড সহ অ্যাকাউন্টের একটি বাতিল চেক প্রয়োজন ছিল। কিন্তু নতুন নিয়ম অনুযায়ী এখন, চেক বুক না থাকলে গ্রাহককে EPF সদস্য অ্যাকাউন্টের বিবরণ হিসাবে ব্যাঙ্ক পাসবুক (ব্যাঙ্ক ম্যানেজার দ্বারা স্বাক্ষরিত) জমা করতে হবে। তবে এর জন্য ইপিএফ সদস্যের একটি ইউনিভার্সাল অ্যাকাউন্ট নম্বর থাকতে হবে এবং এর সাথে ব্যক্তির আধার নম্বর বা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট কেওয়াইসি অবশ্যই পূরণ করতে হবে এবং UAN নম্বর দিয়ে যাচাই করতে হবে।

আরোও পড়ুনঃ আমার শিবিরে দুজনেই আছে…! দেব ও জিৎ-কে নিয়ে কি উপলব্ধি রুক্মিণীর?

অনলাইনে EPF আবেদন প্রক্রিয়া :-

১) প্রথমে গ্রাহককে EPFO সদস্যের অফিসিয়াল পোর্টাল https://unifiedportal-mem.epfindia.gov.in/-এ আপনার UAN নম্বর এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে।

) লগইন হওয়ার পর আবেদন বিভাগে ক্লিক করতে হবে 

৩) এখানে বিভিন্ন অপশন আসবে। তার মধ্যে পেনশন বা সম্পূর্ণ নিষ্পত্তির মতো দাবির ধরনগুলির মধ্যে একটি বেছে নিতে হবে।

৪) এরপর পুনরায় আগের বিবরণ দেখানো হবে ক্রস চেক হিসেবে।

৫) এরপর EPFO দ্বারা প্রদত্ত ছাড়ের সুবিধা নিয়ে সমস্ত নথি আপলোড করতে হবে।

৬) সমস্ত তথ্য যাচাই করে এখন সাবমিট অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে আপনার সংযুক্ত মোবাইল নাম্বারে একটি এসএমএস চলে যাবে। এছাড়া পোর্টালের মাধ্যমে আপনি আপনার দাবির প্রক্রিয়ার উপর নজর রাখতে পারেন।

About Author
Debapriya Sarkar

দেবপ্রিয়া বিগত বেশ কিছু বছর ধরে সাংবাদিকতার সাথে যুক্ত রয়েছেন। ডিজিটাল মিডিয়ার হাত ধরেই সাংবাদিকতায় তার হ...

আরও পড়ুন