স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা সাবধান হয়ে যান, আপনাদের ভালোর জন্যই সতর্ক করছে সরকার !

How To Be Safe From Fraud Call: সময়ের সঙ্গে সঙ্গে উন্নত হচ্ছে প্রযুক্তি। এতে এক দিকে যেমন বহু মানুষের উপকার হচ্ছে ঠিক তেমনই হচ্ছে অপকার। আসলে বেশ কিছু অসাধু ব্যক্তি…

Published By: SS Desk | Published On:

How To Be Safe From Fraud Call: সময়ের সঙ্গে সঙ্গে উন্নত হচ্ছে প্রযুক্তি। এতে এক দিকে যেমন বহু মানুষের উপকার হচ্ছে ঠিক তেমনই হচ্ছে অপকার। আসলে বেশ কিছু অসাধু ব্যক্তি প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে বোকা বানাচ্ছেন আমজনতাকে। আর এবার সেই সমস্ত মানুষকে সাবধান করে দিল টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া। সম্প্রতি স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের প্রতারণামূলক কল সম্পর্কে একটি সতর্কতা জারি করেছে এই সংস্থা।

টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া সম্প্রতি জানিয়েছে কীভাবে অসাধু ব্যক্তিরা বা স্ক্যামররা স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের কল করে তাদের মোবাইল নম্বরের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার হুমকি দিচ্ছে। মনে রাখতে হবে, কোনো গ্রাহকের মোবাইল নম্বর ব্লক বা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার জন্য কিন্তু কোনভাবেই দায়ী নয় টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ঠিক কোন সর্তকতা জারি করেছে এই সংস্থা।

সম্প্রতি সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ‘যে কোনো কানেকশন বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে যদি ফোন আসে তাহলে সেই কল অবিলম্বে কেটে দিতে হবে। গ্রাহকদের মনে রাখা উচিত যে, টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া এভাবে ব্যবহারকারীদের কল করে না কখনোই। এ ধরনের কোনো কল যদি আসে তাহলে অবিলম্বে টেলিকম ডিপার্টমেন্টের Chakshu ফ্যাসিলিটিতে বিস্তারিত জানানো যেতে পারে। সরাসরি ক্লিক করা যাবে এই লিঙ্কে www.sanchaarsaathi.gov.in।

গ্রাহকরা খুব সহজেই নিজেদের মোবাইল কানেকশন চেক করতে পারবেন এই ওয়েবসাইট থেকে। এর জন্য সঞ্চার সাথী পোর্টালে গিয়ে ‘Know Your Mobile No’ অপশনটি বেছে নিতে হবে গ্রাহকদের। এখান থেকে খুব সহজেই নিজেদের কানেকশন যাচাই করে নিতে পারবেন যে কেউ। এমনকি যদি কোনো স্মার্টফোন ব্যবহারকারী সাইবার ক্রাইম দ্বারা আক্রান্ত হয়ে থাকেন তাহলে তিনি হেল্পলাইন নম্বর বা www.cybercrime.gov.in এই লিঙ্কে ক্লিক করে অভিযোগ জানাতে পারবেন।

টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার তরফে আরও জানানো হয়েছে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের কেবলমাত্র ডিসপ্লেতে দেখা নম্বরের উপর ভিত্তি করে কাউকে বিশ্বাস করাটা মোটেই উচিত নয়। স্ক্যামাররা অনেক সময় খুব তাড়াহুড়োর মাধ্যমে টার্গেটকে শিকার করতে চায় আর সে কারণেই নানান ধরনের নম্বর ব্যবহার করেন তারা। এমনকি কোন অজানা উৎস থেকে যদি ফোন আসে তাহলে কখনোই তাদের সঙ্গে নিজের গোপনীয় তথ্য যেমন সোশ্যাল সিকিউরিটি নম্বর, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ডিটেলস বা ফোনের কোনো পাসওয়ার্ড অথবা ওটিপি শেয়ার করা উচিত নয়, বলেই জানিয়েছে টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া।

About Author
আরও পড়ুন